prottaborton
কথোপকথন ও চিঠিপত্র

প্রত্যাবর্তন – সুমাইয়া ইয়াসমিন সুমি

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সত্যিই তো!!

অনেক হলো আনন্দ, উল্লাস! অনেক হয়েছে।

আর না।হ্যা, হ্যা আর নয়।

সময় হয়ে যাচ্ছে,, নীড়ে ফিরতে হবে।

সে অনেক হিসেব যে বাকি,, যার হদিশ নিজের কাছে নেই তবে কিভাবে তাঁর সামনে দাড়াবো!! কিই বা জবাব দেব??

ও কথা ভাববার আর সময় কই?? আমাদের কত কাজ!! সেগুলোই সামলে উঠতে পারি না বাবা; আবার নামায কালাম কখন করবো??

অফিস, তারপর আবার সংসার আরো কত কি,, সে যাই হোক কিছু টা বয়স হোক তখন দেখা যাবে এখন সবে জীবন শুরু করলাম একটু তো উপভোগ করবোই তাই না??

কত দিন পর দোস্ত!! আসলেই অনেক দিন পরে দেখা হলো বল!?

নামায তো পরেও পড়া যাবে তোর সাথে তো কাল আর দেখা হবে না। মনে আছে ওই জায়গার কথা যেখানে ১ _২ টান মারতাম। আরে লজ্জা কিসের চল চল।।

এখন তো নাতি নাত্নি নিয়ে ব্যস্ত থাকি ভাই। খুব পাজি হয়েছে একদম চোখের আড়াল করলেই ব্যস,,  সব কিছু ভেঙে চুড়ে শেষ। ওদের সাথে দিন কেটে যাচ্ছে ভালোই। বেঁচে আছি নামায পড়া যাবে এক সময়।

এইভাবেই চলে যাচ্ছে। টনক না নড়া উবদি এইভাবেই যাবে।। দুনিয়া এদিক সেদিক হয়ে যাক আমরা তো এমন ই থাকবো। বৃদ্ধ বয়সে মাফ চেয়ে নেব হিসাব শেষ। 

কখনো কি ভেবে দেখেছি আমরা এত এত পাপ করতেই থাকি তারপরও,, হঠাৎ রাস্তা দিয়ে চলার সময় একটা বাস এসে ধাক্কা দিচ্ছে না,, গভীর রাতে দম বন্ধ হয়ে গিয়ে মরে যাচ্ছি  না। এত কিছুর পরও আমাদের পালনকর্তা আমাদের সুযোগ দিয়েই চলেছেন। তবুও আমাদের তাঁর জন্য সময় হয় না। শুকরিয়া আদাই করি না সেই মহান দয়াময়ের।

আর কত??

অনেক তো হলো। এখন থেকে আমাদের প্রতিটি দিন শুরু হোক উনার নামে। প্রত্যেকটি প্রত্যাবর্তন হোক আমার রব এর দিকে।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Similar Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *